Shopnobilap
পাগলী বউ

পাগলী বউ (পর্ব – ০৪)

পাগলী বউ (পর্ব – ০৪)

বিয়ে শেষে বউ নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে…..

ছেলে: টিসু টা দিয়ে চোখ মছো, আর কান্না করতে হবে না।

মেয়ে: হুম……..

_ কষ্ট পেয়োনা, ধীরে ধীরে সব ঠিক হয়ে যাবে।

_ হুম…….

_ তুমি তো এইটাই চেয়ে ছিলে যে আমরা স্বামী স্ত্রী হই, তাহলে এখনো মন খারাপ করে আছো কেনো?

_ হুম…..

_ কি হুম হুম করছো? কিছু তো বোলো।

_ আমি কাঁদছি দেখে খুব আনন্দ পাচ্ছ তাইনা?

_ আনন্দ পাবো কেনো, আমি শুধু বললাম কান্না করোনা।

_ আমি কাঁদবো, আমার ইচ্ছা!

_ আচ্ছা কান্না করো, কিন্তু কান্না করলে যে তোমাকে পত্নীর মতো লাগে তাতো আগে জানতাম না।

_ কি বললি তুই, আমি পেত্নী? তুই ভূত!

_ আমি না, তুই!

_ তুই, তুই…!!!

_ ঠিক আছে আমি ভূত, আবার তো চোখের পানি মোছো।

_ ভালো লাগছে না আমার, কথা বলোনা তো!

_ ওকে, কথা বলবো না, কিন্তু এই চকলেট টা যে কি করি………

_ তুমি চকলেট আনছো! কই দাও!

_ কিন্তু যে কান্না করে তাকে তো আমি চকলেট দেইনা।

_ এখন নাদিলে কিন্তু আরো জারি জোরে কান্না করবো !

_ আরে পাগল নাকি, গাড়িতে আরো মানুষ আছে নাহ, সবাই শুনতে পেলে কি মনে করবে।

_ তুমি যে কখন থেকে এত কথা বলছো, তারা কিছু মনে করছে না?

_ আমরা তো ফিস ফিস করে বলছি, কেউ শুনতে পাচ্ছেনা।

_ হুম, বুঝতে পারছি তো, এইবার আমার চকলেট দাওয় !

_ নাওয়, তাও আর ঝগড়া করোনা!

_ কি আমি ঝগড়া করি?

_ নাহ মানে, কান্না করোনা!

_ ফাজিল, শয়তান, কুত্তা, তুই বাড়িতে চল তারপর তোর মজা দেখাবো।

_ কেনো? বাড়িতে গেলে কি হবে?

_ কিছু না!

_ ওহ… বউ সেজে নাহ তোমাকে অনেক সুন্দর লাগছে!

_ কিভাবে দেখলে? গাড়ি তো অন্ধকার।

_ আরে…. না দেখেও বোঝা যাচ্ছে!

_ যাহ কুত্তা! জানি, আর বলতে হবে না।

_ কি জানো তুমি?

_ আমি জানি তুমি এইগুলা আমার মন রাখার জন্য বলতেছে।

_ বাহ্….. তুমি তো অনেক ভালো বুঝতে পারো!

_ হারামি….. তুই আমার পাশেই বসবিনা, দূরে যা কুত্তা!

_ নাহ রে.. সত্যি বলছি তোমাকে অনেক সুন্দর লাকছে!

_ ফাজলামি করোনা তো, এমনিতেই আব্বু আম্মু কে ছেড়ে আসছি, অনেক কষ্ট হচ্ছে!

_ কষ্ট পেয়োনা বাবু! আমি তো আছি।

_ ঘোড়ার ডিম আছো !

_ আমার পাগলী বউ! রাগ করেনা, আমার কাঁধে মাথা দিয়ে থাকো!

_ হুম, তোমার হাত টা দাওয়।

Nafis Ahamed

Show Buttons
Hide Buttons
error: Don\'t Try To Copy Please !!